পিংক এন্ড ব্লু

প্রিয় নারীগণ, গোপন সত্যটা জানুন!

সভ্য পুরুষের হৃদয়ঘটিত সমীকরণগুলো খুবই জটিল। সেটা বুঝতে পারা একটা যোগ্যতা। প্রিয় নারী, আপনি হতেই পারেন অড্রে হেপবার্ন এর মতো রূপবতী, কিন্তু, শুধুমাত্র আপনার বাহ্যিক আবরণের আকর্ষণে, আপনার জীবনে একজন সভ্য পুরুষ আসবে, এমন গ্যারান্টি দেয়া সম্ভব না। তাহলে আপনার কেন মনে হয় যে আজ যার হাত ধরেছেন কিংবা ধরবেন কিংবা ধরতে চান, সে আপনার হাত ধরবে , কিংবা ধরে রাখবে শুধু আপনার শারীরিক সৌন্দর্যেই মুগ্ধ হয়ে?

সভ্য পুরুষের হৃদয় গোলক ধাঁধার মতো, সেই ধাঁধার উত্তর খুঁজতে মেধা লাগে, যোগ্যতা লাগে। একটা অশিক্ষিত, বর্বর পুরুষকে যত সহজে কথিত রূপ দিয়ে আকর্ষিত করা যায়, একজন শিক্ষিত সভ্য পুরুষকে শুধু রূপ দিয়ে জয় করা যায় না। সভ্য পুরুষেরা রূপে মুগ্ধ হয় কিন্তু নারীর অভিরুচি, চিন্তা, আচরণ আর জ্ঞানের কাছে নত হয়, প্রেমে পড়ে। রূপ এর প্রতি তাদের আকর্ষণ ছাড়িয়ে যায় তখন, যখন আড্ডার ছলে সে জেনে যায় , সামনে বসা মেয়েটি তাকে কথায়, আচরণে, চিন্তায়, মেধায় মুগ্ধ করার ক্ষমতা রাখে। এই মেয়েটির ব্যক্তিত্বের সামনে নত হওয়া যায়।

প্রিয় নারীগণ, জীবনে একজন পুরুষ পাওয়া সহজ কিন্তু জীবন সঙ্গী হিসেবে একজন সভ্য পুরুষ পেতে আপনাকে অবশ্যই চিন্তা শাণিত করতে হবে, জানার পরিধির সীমানাটা ছাড়িয়ে যেতে হবে ,জ্ঞান-বিজ্ঞান-যুক্তির পারদর্শীতা অর্জন করতে হবে, আবার হাসির মধ্যে বুদ্ধিদীপ্ত সৌন্দর্য লুকিয়ে, তা আবার গোপনে দেখাতেও হবে। আপনার সাথে আড্ডা দেবার তীব্র আকাঙ্ক্ষা তার ভেতরে তৈরি না হলে, আপনার রূপ তার কাছে ফিকে হতে সময় নেবে না।

তাই বলে ভেবে নেবেন না, নিজেকে পুরুষের জন্য তৈরি করছেন, বিষয়টা হলো নিজেকে একজন যোগ্য নারী হিসেবে তৈরি করছেন, নিজের জন্য। আর আপনার যোগ্যতাই একজন সভ্য পুরুষকে মুগ্ধ করবে।

শুধু নারী হয়ে জন্মেছেন বলে একজন সভ্য পুরুষ তার হৃদয় আপনার প্রতি সমর্পণ করবে না, বরং তাকেও জয় করার বিষয় আছে। শুধু নারীর জন্য যুদ্ধ হয় না, পুরুষের জন্যও হয়। পুরুষ বলে, তার ভালবাসা মোটেও সহজ কিছু না, এই গোপন সত্যটাও জানুন।