ট্রাম্পের মূর্তি বানিয়েছেন দুই লাখ রূপি খরচ করে। সারা ঘর জুড়ে ট্রাম্পের ছবি, পোস্টার, স্টিকার। মন্দিরে রেখে পূজা করতেন ট্রাম্পের ছবিকেও। তার নামও হয়ে গিয়েছিলো 'ট্রাম্প কৃষ্ণা'। ট্রাম্পের করোনা হওয়ার খবরে সেই মানুষটিই হার্ট অ্যাটাক করলেন...

ভারতবর্ষ অদ্ভুত এক জায়গা। এই দেশের বিভিন্ন প্রকোষ্ঠে এমন সব মানুষজন বাস করেন, যাদের কর্মকাণ্ড শুনলে মাঝেমধ্যেই চমকে যেতে হয়। যেরকমটা হয়েছে তেলেঙ্গানার এক বাড়াবাড়ি রকমের ট্রাম্প-ভক্ত'কে নিয়ে। লোকটির নাম বশ্য কৃষ্ণা। এই লোকটি ট্রাম্পকে ইশ্বরের মত ভক্তি করেন। গত মেয়াদে ট্রাম্প যখন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হলেন, তখন একদিন ভোরে ট্রাম্পকে স্বপ্নে দেখেন কৃষ্ণা। এরপর থেকেই তার ট্রাম্প-ভক্তি শুরু। ঘরে পূজার আসনে তিনি অন্য সব দেবতার পাশাপাশি বসিয়েছেন ট্রাম্পের ছবিও। নিয়মিত পূজাও করতেন তিনি সেখানে।

প্রতিদিন নিয়ম করে ট্রাম্পের পূজা করা, মালা জপতে থাকা, ট্রাম্পের ছবিতে মালা-ধূপ-ধুনো দেয়া... সবই করতেন তিনি। কিছু ভিডিও করেছিলেন তিনি, যেখানে দেখা যাচ্ছিলো, গভীর মনোযোগ দিয়ে যত্নের সাথে ট্রাম্পের পূজা করছেন তিনি। তার এই বাড়াবাড়ি রকমের ট্রাম্প-প্রীতির কারণে এলাকায় তার নামই হয় গিয়েছিলো- ট্রাম্প কৃষ্ণা।

'ট্রাম্প' লেখা টিশার্টও তিনি পরতেন নিয়মিত! 

ট্রাম্প কৃষ্ণার ইচ্ছে ছিলো, আমেরিকায় গিয়ে একবার ট্রাম্পের সাথে দেখা করবেন তিনি। এবং এটাও তিনি ভাবতেন, তার এই প্রার্থনা হয়তো ট্রাম্পের কানে গিয়ে পৌঁছাবে কোনো একদিন। দুই বছর আগে দুই লাখ টাকা খরচ করে তিনি ট্রাম্পের একটা মূর্তিও স্থাপন করেছিলেন বাড়িতে। এছাড়াও সারা বাড়িতেই ট্রাম্পের বাঁধাই করা ছবি, স্টিকার, পোস্টার ছিলো অজস্র। কৃষ্ণা নিয়মিত ট্রাম্পের নাম ও ছবিসম্বলিত টি-শার্ট পরতেন। এতটাই তীব্র ছিলো তার ভালোবাসা। তিনি এটাও বিশ্বাস করতেন, ট্রাম্প এবারেও হয়তো  নির্বাচিত হবেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে।

দুই লাখ রূপি খরচ করে বানিয়েছিলেন ট্রাম্পের মূর্তিও! 

কিন্তু এরমধ্যেই ঘটলো অঘটন। ট্রাম্প, স্ত্রী'সহ করোনায় আক্রান্ত হলেন। এই খবর জানতে পেরে শোকে ভেঙ্গে পড়েন ট্রাম্প কৃষ্ণা। সম্প্রতি তিনি একটা ভিডিওবার্তাও প্রকাশ করেন, যেখানে ট্রাম্পের ছবি ধরে তাকে তীব্র কান্না করতে দেখা গিয়েছে। ট্রাম্প করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরেই কেমন মনমরা-বিষন্ন হয়ে পড়েছিলেন কৃষ্ণা। খাওয়াদাওয়াও করতেন না নিয়মিত। ভারতের বেশ কিছু শীর্ষস্থানীয় দৈনিকে তাকে নিয়ে সংবাদও বের হয়েছে এ সময়ে এসে। সেই মানুষটিই সম্প্রতি হার্ট এ্যাটাক করে মারা গেলেন। বিস্ময়ের ব্যাপার, তার শারিরীক জটিলতা ছিলো না কোনো। সুস্থসবল মানুষটি মারা গেলেন আচমকাই। যদিও সবার আশঙ্কা, ট্রাম্পের শোকেই মারা গিয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় পুরো গ্রামেই নেমে এসেছে শোকের ছায়া। ট্রাম্প কৃষ্ণার পাগলামির কারণেই তিনি ছিলেন সবার প্রিয় ও কাছের। 

ওদিক ট্রাম্প করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আগে থেকেই করোনাকে নিয়ে নিয়মিত হাসাহাসি করেছেন। নিজে করোনা-পজেটিভ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার নয় দিন পরেই জনসমক্ষে এসেছেন। বক্তৃতা দিয়েছেন। তার ডাক্তারেরাও খোলাসা করেনি, তিনি পুরোপুরি সুস্থ হয়েছেন কী না। ট্রাম্প যে জনসম্মুখে ঘুরে বেড়াচ্ছেন শুধু তাও না, জনসমাগমের মধ্যে এসে 'মাস্ক' খুলে ফেলে জানাচ্ছেন, তিনি এখন চমৎকার আছেন। করোনা নিয়ে মোটেও বিচলিত নন তিনি। এদিকে তার চিন্তা করে করে মারাও গিয়েছে এক মানুষ!

অদ্ভুত ট্রাম্প! অদ্ভুত তার ভক্ত! 'যেমন বুনো ওল, তেমনি বাঘা তেঁতুল' বলে একটি প্রবাদ আছে বাংলায়। ট্রাম্প ও ট্রাম্প কৃষ্ণার জন্যে এই প্রবাদকে একটু ভিন্নভাবে বলা যায়- 'যেমন পাগল মানুষ, তেমনি তার পাগলা ভক্ত।'

আরো কতকিছু দেখার যে বাকি আছে সামনে, জানা নেই আসলে।

*

প্রিয় পাঠক, চাইলে এগিয়ে চলোতে লিখতে পারেন আপনিও! লেখা পাঠান এই লিংকে ক্লিক করে- আপনিও লিখুন


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা