২০১০ সালের হিসেবানুযায়ী বাংলাদেশে প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২৯১৮ জন বাস করে! বিশ্বের কোনো দেশেই এরচাইতে বেশি ঘনত্বে মানুষ বসবাস করে না।

সাদীয়া ইসলাম রোজা: গিনেস বুকে নিজের নাম, নিজের দেশের নাম কে না দেখতে চায়! বাংলাদেশের নামও গিনেস বুকের বেশ কিছু রেকর্ডে ঠাই পেয়েছে। বেশ কিছু রেকর্ড ভালো লাগার হলেও নিশ্চিতভাবেই কয়েকটি রেকর্ডে বাংলাদেশের নাম দেখাটা আমাদের জন্য ভীষণ বিব্রতকর ও কষ্টের। চলুন দেখে নেওয়া যাক-

এক সাথে সবচেয়ে বেশি মানুষের অংশগ্রহণে জাতীয় সঙ্গীত

২০১৪ সালে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ১ লক্ষ মানুষ একসাথে জাতীয় সংগীত গেয়ে গিনেস বুকে নাম লেখায় বাংলাদেশ।

সবচাইতে বেশি মানুষ শীর্ণকায়

বিএমআই (বডি ম্যাস ইনডেক্স) সূচক অনুযায়ী, বাংলাদেশের মানুষ সবচাইতে বেশি শীর্ণকায়। ৯০ লাখেরও বেশি শিশুর ওজন স্বাভাবিক শিশুদের তুলনায় কম।  

সবচেয়ে বৃহৎ সাইকেলের লাইন

বিডিসাইক্লিস্টের আয়োজনে ২০১৬ সালের ১৬ ডিসেম্বর ১১৮৬ জন সাইক্লিস্ট অংশ নিয়েছিলেন এই বিশ্বরেকর্ড গড়ার মিশনে। রেকর্ড করার জন্য পুরো পথ তাদের একটি সিঙ্গেল লাইনেই থাকতে হয়েছিল।

সবচেয়ে বড় শিল

২.২ পাউন্ড ওজনের শিল পড়েছিল গোপালগঞ্জে, ১৪ এপ্রিল ১৯৮৬ সালে। ভয়াবহ এই ঝড়ে ৯২ জন মারা যায়।

একই পরিবারের মধ্যে বিয়ে

নরেন্দ্রনাথের পাঁচ ছেলে তারাপদ কর্মকারের পাঁচ মেয়েকে বিয়ে করেছিল ১৯৭৭ থেকে ১৯৯৬ সালের মাঝে। এটি একটি বিশ্বরেকর্ড।

মাথায় ফুটবল রেখে রোলার স্কেটসে দ্রুতগতিতে ১০০ মিটার অতিক্রম

২০১৫ সালের ২২ নভেম্বর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে আবদুল হালিম মাথায় ফুটবল ব্যালেন্স করে রেখে রোলার স্কেটসে ১০০ মিটার পার করেন মাত্র ২৭.৬৬ সেকেন্ডে। এটি বিশ্বরেকর্ড।

সবচে বড় ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট

বিশ্বের সবচাইতে বড় ম্যানগ্রোভ ফরেস্টের নাম সুন্দরবন।

গিনেজে বাংলাদেশের যত রেকর্ড  

সবচেয়ে বড় মানববন্ধন

২০০৪ সালের ১১ ডিসেম্বর তৎকালীন বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে 'নো-কনফিডেন্স' ক্যাম্পেইনের আওতায় এই মানববন্ধনের আয়োজন করেছিল আওয়ামী লিগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ার এই মানববন্ধন ছিল ১০৫০ কিলোমিটারব্যাপী!

সর্বাধিক ঘনত্ব

২০১০ সালের হিসেবানুযায়ী বাংলাদেশে প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২৯১৮ জন বাস করে! বিশ্বের কোনো দেশেই এরচাইতে বেশি ঘনত্বে মানুষ বসবাস করে না।

সবচাইতে ভয়াবহ বন্যা

সবচেয়ে বড় বন্যা এবং গৃহহীন হওয়ার রেকর্ডটি দুঃখজনকভাবে বাংলাদেশের। ১৯৯৮ সালে দেশের ভয়াবহ এই বন্যায় আড়াই কোটি মানুষ ঘর হারায় এবং প্রায় ৫৭ ভাগ অঞ্চল প্লাবিত হয়। 

(ইনডেপেন্ডেন্ট অবলম্বনে)


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা