মৃত্যুকে মধ্যাংগুলি দেখিয়ে ফিরে আসা এই মানুষটার ৪৪তম জন্মদিন গেল কয়েকদিন আগে। ভালো থাকুন জাদুকর, যে জাদু দিয়ে আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়ে যাচ্ছেন, তার প্রবাহধারা বন্ধ না হোক। জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা!

শিবলী ইসলাম: একটা গল্প বলি। লোকটার ওজন ছিল ১৭৪ কেজি। আর দেড় বছরে সেই ওজন কমিয়ে নিয়ে আসেন ৮৮ কেজিতে! এই গল্পটা ডেডিকেশনের। ২০১০ সালে তার প্রথমবার ক্যান্সার ধরা পড়ে। তারপর যখন ছয়বারের মতন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন, ১২টা সার্জারি আর ৯টা ক্যামোথেরাপি দিতে হয়। ডাক্তার যখন তাকে সার্জারি করতে নিয়ে যায়, তাকে জানানো হয়- তিনি বাঁচতেও পারেন, নাও বাঁচতে পারেন। তখন তিনি বলে উঠেন- তার বাঁচতে হবে, কারণ পরের বছর হবিট এর সেকেন্ড পার্ট বের হবে, তিনি এটা দেখেই মরতে চান!

একবার সার্জারিতে যাওয়ার সময় তিনি অবলীলায় বলে উঠেন, 'আরেহ ক্যানসারই তো হইসে, জ্বর তো হয় নাই!' এই গল্পটা হাসিমুখে সব মোকাবেলা করার।

একবার তার একজন বন্ধু তাকে চ্যালেঞ্জ দেয়, তিনি যদি ৬ মাস সিগারেট না খেয়ে থাকতে পারেন, সে তাকে এক লাখ টাকা দিবে। প্রতিদিন ৫০/৬০টা সিগারেট খাওয়া লোকটা ঠিকই ৬ মাস সিগারেট না খেয়ে ছিলেন! এই গল্পটা চ্যালেঞ্জ নিতে পারার। 

গল্পটা হাসিমুখে সব মোকাবেলা করার

তিনি ভ্রমণ পিপাসু মানুষ, বিভিন্ন জায়গায় ভুঁড়ি ভুঁড়ি খাবারের ছবি আপলোড করেন। অথচ এর কিছুই তিনি হজম করতে পারেন না, প্রত্যেক বেলা খাবারের পর তিনি তা বমি করে ফেলে দেন! কারণ তার পাকস্থালীর ৮৫% কেটে ফেলে দেয়া হয়েছে! এই গল্পটা নিজেকে হ্যাপি রাখার। 

এই যে এতক্ষন এতো গল্প বললাম, এরকম না জানা হাজার গল্প মিলে একটা অনুপ্রেরণার গল্প তৈরি হয়। হ্যাঁ, অনুপ্রেরণার নাম বেজবাবা। সুমন ভাই, আপনি জানেন না আপনার তৈরি করে দেয়া অদ্ভুত সেই ছেলেটির গল্প বুকে নিয়ে কত হাজার হাজার তরুন এখনো বাঁচার স্বপ্ন দেখে। আপনি জানেন না সুমন ভাই, 'হারিয়ে যাইনি, এখনও চলছে এই হৃদপিন্ডটা'- কত ক্যানসার রোগীর হার না মানার সঙ্গী! আপনি জানেন না সুমন ভাই, 'তুমি বলেছিলে মানুষ বদলায়, আমিও বদলে গেছি'- চিৎকার দিয়ে গাইতে গাইতে কত ধোঁকা খাওয়া প্রেমিক তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা পায়! আপনি জানেন না সুমন ভাই, 'নিষ্পাপ আমার প্রস্থান লেখা থাকবে না, সাজানো কোন এপিটাফে'- এখনো কত অকাল গর্ভপাতে ঝরে যাওয়া ভ্রুনের কথা বলে! আপনি জানেন না সুমন ভাই, এখনো বৃষ্টি নামলে কত অভুক্ত হৃদয় আপনার এপিটাফে মন ভরায়। 

মৃত্যুকে মধ্যাংগুলি দেখিয়ে ফিরে আসা এই মানুষটার জন্মদিন গেল কিছু দিন আগে। ভালো থাকুন জাদুকর, যে জাদু দিয়ে আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়ে যাচ্ছেন, তার প্রবাহধারা বন্ধ না হোক। আমার জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময়গুলোর অনুপ্রেরণা ছিলেন আপনি, আমার লাইফের আরও যত খারাপ সময়ই আসুক না কেনো, অনুপ্রেরণা হিসেবে আপনিই থাকবেন। 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা